কথা হচ্ছে ভ্রমণ কীভাবে মানুষকে পরিবর্তন করে থাকে? অনেকের মধ্যেই এমন জিজ্ঞাসা হতেই পারে। সে যাই হোক, ভ্রমণের উপকারিতা বা ভ্রমণ মানুষের সামাজিক এবং মানবিক যে পরিবর্তন ঘটিয়ে থাকে সেটা কীভাবে হয়ে থাকে তা নিয়েই জানবো আজকে আমরা।

প্রাত্যহিক জীবনের নানান বন্ধুর পথ ও কঠিন বাস্তবতা মানুষের নিজের প্রতি বিশ্বাস ও আস্থাকে ধীরে ধীরে কমিয়ে ফেলে। মানুষ হয়ে পড়ে আত্মবিশ্বাসহীন ও হতাশ। ভ্রমণ আপনাকে সহায়তা করে নিজের প্রতি বিশ্বাস অর্জন করতে। উঁচু পাহাড়ে দীর্ঘ পথ হাইকিং করা, আকাশ থেকে ঝাঁপিয়ে পড়ে পাখির চোখে পৃথিবীকে দেখা বা উত্তাল সমুদ্রের বুকে সার্ফিং আপনাকে শেখায় মানুষ তাঁর বুদ্ধি ও শ্রম দ্বারা অর্জন করতে পারে সব বিশাল বাঁধাকেই। দরকার কেবল চেষ্টা আর স্বদিচ্ছা, যেখানে ভ্রমণ আপনাকে মুখোমুখি করে দেয় সেই বিপদসংকুল পথের শেষের উচ্ছ্বাস আর আনন্দধারার সাথে। যা আপনিই অর্জন করেছেন ঘর থেকে বের হয়ে ভয় কে পিছনে ফেলে।

ভ্রমণে আপনাকে পরিচয় করিয়ে দেয় বিচিত্র মানুষ, তাঁর ধর্ম, আচার ব্যবহারের সাথে। আপনার চিন্তার গণ্ডীর বাহিরেও যে বিশাল এক পৃথিবী ও তাতে মানুষের প্রাত্যহিক যাপনের ভিন্নতা, রূপ, মাধুর্য আপনাকে দেয় নতুন এক দৃষ্টিভঙ্গি ও ভাবনার মশাল। যে মশাল ধরে চিন্তার আশ্চর্য গুহায় আপনি এগিয়ে যান নতুন নতুন ভাবনা ও দৃশ্যের সাথে নিজেকে পরিচয় করিয়ে দিতে। ভ্রমণের উপকারিতা এমনিভাবে ব্যক্তির মনোজগতেও পরিবর্তন ঘটায়।

সৃষ্টিকর্তার সৃষ্টিকে দেখার ভেতর দিয়ে সৃষ্টিকর্তার মহিমান্বিত রূপ ও বিশালতাকেই তুলে ধরে থাকে।

ভ্রমণপ্রিয় মানুষ দুঃসাহসিক হয়ে থাকেন। আপনি যখন আত্মবিশ্বাসী হন তখন যেকোনো কঠিন সিদ্ধান্ত বা পরিস্থিতি মোকাবেলায় আপনাকে সাহসীর ভূমিকায় অবতীর্ণ করায়। আপনার কমফোর্ট জোন থেকে বেরিয়ে নতুন কিছুকে মোকাবেলার শক্তি বৃদ্ধিতে ভ্রমণ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। একটা কাঁধ ব্যাগে সামান্য কিছু প্রয়োজনীয় জিনিশপত্র নিয়ে জীবনের কয়েকটা দিন কাটিয়ে ফিরে আপনি হয়তো বুঝতে পারেন জীবন সুন্দরভাবে যাপনে আসলে তেমন বেশি কিছুর প্রয়োজন নেই। ভ্রমণের অচেনা পথে বিভিন্ন মানুষের জীবনের অভিজ্ঞতাও আপনার মধ্যে প্রভাব ফেলে যা আপনাকে করে তোলে আরও বাস্তববাদী। সুখ নামের জীবনের চরমতম এক মুহূর্ত ধারণ করতে আমাদের কতই না আয়োজন। অথচ ঘর হতে দু পা বেরিয়ে একটা সরল দৃশ্যও আপনার মধ্যে সেই সুখের আবির্ভাব ঘটাতে পারে। ভ্রমণ আসলে আপনাকে সেই মোক্ষম সুখ লাভের সহজ পথটির দিশাই দিয়ে থাকে, যে কতো সহজে আপনি সুখী হতে পারেন, খুবই অল্প কিছুর বিনিময়ে সেই অধরা সুখ আপনার মাঝে সঞ্চার করতে পারে দারুণ এক জীবনীশক্তি।